Home ফিচার ঢাকার পাশে নির্মিত হবে চার উপশহর

ঢাকার পাশে নির্মিত হবে চার উপশহর

ঋণ দেবে বিশ্বব্যাংক

কারিকা প্রতিবেদক
বিশ্বে বসবাসের সবচেয়ে অযোগ্য শহরের তালিকায় ঢাকার অবস্থান দ্বিতীয়, খবরটি প্রায় সবারই জানা। বসবাসযোগ্যতার দিক দিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শহরের একটি তালিকা তৈরি করেছে ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট। রাজনৈতিক ও সামাজিক স্থিতিশীলতা, অপরাধের মাত্রা, শিক্ষার সুযোগ ও স্বাস্থ্যসেবার মানের মতো বেশকিছু সূচক বিবেচনায় নিয়ে সারা বিশ্বের ১৪০টি শহরের ভালো-মন্দ দিক বিবেচনায় নিয়ে তালিকাটি করা হয়েছে। ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের বসবাসের অযোগ্য শহরের তালিকায় ঢাকার নিচে অবস্থান করছে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার রাজধানী দামেস্ক।
তবে দুঃসংবাদের পাশাপাশি ঢাকাবাসীর জন্য স্বস্তির সংবাদও আছে। ঢাকার পাশে চারটি উপশহর গড়তে ঢাকা সিটি করপোরেশনকে ৮৫০ কোটি টাকা দেবে বিশ্বব্যাংক।
বিশ্বব্যাংকের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সমিতির (আইডিএ) আওতায় আগামী ৩০ বছরের মেয়াদে শতকরা শূন্য দশমিক ৭৫ শতাংশ সার্ভিস চার্জে ও ১ দশমিক ২৫ শতাংশ সুদে এই ঋণ দেবে বিশ্বব্যাংক।
গত মে মাসের শেষের দিকে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে এ-সংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) অতিরিক্ত সচিব জাহিদুল হক ও বিশ্বব্যাংকের পক্ষে ভারপ্রাপ্ত আবাসিক প্রতিনিধি জাহিদ হোসেন নিজ নিজ সংস্থার পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।
‘ঢাকা সিটি নেইবারহুড আপগ্রেডিং প্রজেক্টের আওতায়’ রাজধানী কামরাঙ্গীরচর, লালবাগ, সূত্রাপুর-নয়াবাজার-গুলিস্তান, খিলগাঁও-মুগদা-বাসাবোতে চারটি উপশহর গড়ে তুলতে এই ঋণ দেয়া হবে। প্রকল্পের আওতাভুক্ত এলাকায় খেলার মাঠ, পার্ক, জলপ্রপাত, রাস্তা, হাঁটার পথ, উন্মুক্ত সবুজ স্থান ও নাগরিক সুবিধা-সংবলিত কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ করা হবে। যাতে করে প্রকল্প-এলাকার ১০ লাখ মানুষ প্রত্যক্ষ সুবিধা ভোগ করার পাশাপাশি এসব এলাকায় বসবাসরত নারী, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরাও উপকৃত হবেন।
প্রকল্প সম্পর্কে বিশ্বব্যাংকের আবাসিক প্রতিনিধি জাহিদ হোসেন বলেন, ‘বাংলাদেশের মোট উৎপাদনশীলতার দিক দিয়েই ঢাকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে সমন্বিত সড়ক নেটওয়ার্ক তৈরির পাশাপাশি খেলাধুলার মাঠ ও খালি জায়গা তৈরি করে সাধারণ মানুষের জন্য স্বস্তির পরিবেশ নিশ্চিত করাই এ প্রকল্পের প্রধান উদ্দেশ্য।’

NO COMMENTS

Leave a Reply