Home মূল কাগজ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স ঢাকায় প্রথমবারের মতো পিআর অ্যান্ড ব্র্যান্ড কমস সামিট অনুষ্ঠিত

ঢাকায় প্রথমবারের মতো পিআর অ্যান্ড ব্র্যান্ড কমস সামিট অনুষ্ঠিত

কারিকা প্রতিবেদক
জনসংযোগ, মিডিয়া ও ব্র্যান্ড কমিউনিকেশন্স কৌশল এবং দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ঢাকায় প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো ‘পিআর অ্যান্ড ব্র্যান্ড কমস সামিট ২০১৯’। রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি) কমপ্লেক্সে ২৬ অক্টোবর দিনব্যাপী এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

কমিউনিকেশন্স ফার্ম র’দিয়া আইএনসি, সুশিক্ষায় স্বপ্ন বুননের প্ল্যাটফর্ম ড্রিম ডিভাইজার ও ডিজিটাল লাইফ স্কিলস শব্দকল্পদ্রুম এর সহযোগিতায় সম্মেলনটি আয়োজিত হয়। প্রধান অতিথি হিসাবে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ডঃ আতিউর রহমান, সমাপনী অনুষ্ঠানে ‘গেস্ট অব অনার’ ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক নীলিমা আকতার এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউনিয়ন ক্যাপিটালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক চৌধুরী মনজুর লিয়াকত ।
ডঃ আতিউর রহমান বলেন, পিআর, কমিউনিকেশনস ও ব্র্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বর্তমান সময়ের তিনটি আলোচিত ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এই তিনের সমন্বয়ে একজন ব্যক্তি বা একটি ব্র্যান্ড সবার মাঝে পরিচিতি পায় বা সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। যদিও দেখা যায়, অনেক প্রতিষ্ঠানে এ তিন বিষয়ের কাজই একত্রে করে থাকেন একজন ব্যক্তি বা একটি বিভাগ। কালের পরিক্রমায় বিভিন্নভাবে এসব দিকের পরিবর্তন এসেছে। আর এটা সম্ভব করেছে প্রযুক্তি।

সম্মেলনটির সমন্বয়কারী ও র’দিয়ার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সৈয়দ রবিউস সামস জানান, এখন থেকে প্রতি বছর সামিটটি অনুষ্ঠিত হবে। এবং এটি মিড-লেভেল ও তরুণ পেশাজীবী, উদ্যোক্তা, ফ্রেশার, শিক্ষার্থী এবং পিআর ও ডিজিটাল মার্কেটিং আগ্রহীদের জন্য আদর্শ সুযোগ। সামিটে অংশগ্রহণকারীরা ক্রিয়েটিভ কমিউনিকেটর, ডোমেন এক্সপার্ট এবং রিয়েল-লাইফ এডুকেটরদের কাছ থেকে একটি ইন্টারেক্টিভ পরিবেশ এবং অভিজ্ঞতা শেয়ার করার প্ল্যাটফর্ম পায়। যেখানে সেশনগুলো গণযোগাযোগ, বিজ্ঞাপন এবং ব্র্যান্ডিং ইকোসিস্টেমের প্রয়োজনীয় জ্ঞান এবং দক্ষতা বৃদ্ধি করে। একই সাথে ছিল- দেশের শীর্ষস্থানীয় কর্পোরেট ব্যক্তিত্ব ও প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে নেটওয়ার্কিংয়ের সুযোগ। ২০ থেকে ৪০ বছর বয়সী ২০০ জন আগ্রহীরা দিনব্যাপী সম্মেলনটিতে অংশগ্রহণ করেন ।

বিশেষ এ পাবলিক রিলেসন্স অ্যান্ড ব্র্যান্ড কমিউনিকেশন্স সামিটে ৩টি প্যানেল আলোচনা, ১টি মূল সেশন, ১টি ব্রেকআউট সেশন এবং ১টি অনুপ্রেরণামূলক অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয় ।

NO COMMENTS

Leave a Reply