Home মূল কাগজ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স নির্মাণ মেলা ২০১৯ এবং আর্ক এশিয়া ফোরাম ২০২০ এর পর্দা নামলো

নির্মাণ মেলা ২০১৯ এবং আর্ক এশিয়া ফোরাম ২০২০ এর পর্দা নামলো

কারিকা প্রতিবেদক

মঙ্গলবার বিকেলে পর্দা নেমেছে নির্মাণ মেলা ২০১৯ এবং আর্ক এশিয়া ফোরাম ২০২০ এর। রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিনব্যাপী আয়োজিত এই মেলায় ২১টিরও বেশি দেশের নির্মাণ সামগ্রী উৎপাদন, আমদানিকারক ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠানগুলো অংশ নেয়। স্টল ছিলো ৭৮টি।

আর্কএশিয়া ফোরাম-২০’ শীর্ষক এশীয় স্থপতিদের সম্মেলনের পাশাপাশি এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

এর আগে গত রবিবার (৩রা নভেম্বর) নির্মাণ মেলা ২০১৯ এবং আর্ক এশিয়া ফোরাম ২০২০ এর উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, “বাংলাদেশ যে উন্নত হচ্ছে তা রাস্তায় বের হলেই দেখা যায়। নির্মাণ শিল্পের যে ঝড় উঠেছে তার প্রমাণ পাই রাস্তায় বের হলেই। যেখানেই যাই সেখানেই চোখে পড়ে নির্মাণযজ্ঞ। রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখা যায় লোহা, পাথর, সিমেন্ট, বালুসহ নানা নির্মাণ সামগ্রী, যা দিয়ে তৈরি হচ্ছে বড়-বড় ভবন।”
শুধু নির্মাণ শিল্প নয়,অন্য ক্ষেত্রেও বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে বলে সন্তোষ প্রকাশ করেন মন্ত্রী।”
পরিকল্পনামন্ত্রী আরও বলেন,“এই নির্মাণ যজ্ঞের কারণে দেশে স্থাপত্যবিদ্যা সম্পর্কে জানার সুযোগ তৈরি হয়েছে, যা আগে ছিল না। নির্মাণ যে একটি শিল্প এখন মানুষ তা বুঝতে পেরেছে।”
শুধু নির্মাণ শিল্পে নয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিনির্মাণেও বড় ঝড় উঠেছে বলে জানান মান্নান।

আর্কিটেক্টস রিজিওনাল কাউন্সিল এশিয়ার (আর্কেএশিয়া) প্রেসিডেন্ট রিটা সোহ বলেন, ‘বিল্ডিং নির্মাণের ক্ষেত্রে উন্নত মানের মেটেরিয়াল ব্যবহার করতে হবে। তা না হলে বিল্ডিংয়ের স্থায়িত্ব দীর্ঘদিন হবে না। বর্তমানে বিল্ডিং নির্মাণের জন্য উন্নত প্রযুক্তির মেটেরিয়াল পাওয়া যায়। এসব মেটেরিয়াল ব্যবহারের ফলে যেকোনো বিল্ডিংয়ের স্থায়িত্ব বাড়বে।’

ছবিঃ বিডিনিউজ স্টোয়েন্টি ফোরের সৌজন্যে

নির্মাণ মেলা ২০১৯ এবং আর্ক এশিয়া ফোরাম ২০২০ এ আইএবির সভাপতি জালাল আহমেদ, সাবেক সভাপতি মোবাশ্বের হোসেন, আর্কএশিয়া ফোরাম২০ এর আহ্বায়ক আবু সাঈদ এম আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

দি আর্কিটেক্টস্ রিজিওনাল কাউন্সিল এশিয়া-আর্কএশিয়া সদস্য দেশগুলোর স্থপতিদের জাতীয় প্রতিষ্ঠানের সভাপতিদের সমন্বয়ে গঠিত। সংগঠনটি সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলোর আঞ্চলিক কার্যক্রম এবং সম্পর্ক প্রসারে কাজ করে থাকে।

আর্কএশিয়া ১৯৬৭ সালে ভারতের নয়াদিল্লিতে প্রতিষ্ঠিত হয়।আর্কএশিয়ার বর্তমান সদস্য দেশ ২১টি। এগুলো হলো-ভুটান, বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, লাওস, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, মালয়শিয়া, ব্রুনেই, সিঙ্গাপুর, ফিলিপাইন, ভিয়েতনাম, ম্যাকাউ, চীন, হংকং, জাপান, কোরিয়া এবং মঙ্গোলিয়া।

NO COMMENTS

Leave a Reply