Home অন্তর্জাতিক নোবেলজয়ী লেখক আর্নেস্ট হেমিংওয়ের বাড়ি এখন জাদুঘর

নোবেলজয়ী লেখক আর্নেস্ট হেমিংওয়ের বাড়ি এখন জাদুঘর

0 134

আর্নেস্ট হেমিংওয়ে এমন একজন ব্যক্তি ছিলেন যিনি জীবদ্দশায় অনেক চমৎকার জায়গায় বসবাস করেছিলেন এবং পৃথিবীর অনেক স্থান ভ্রমণ করেছেন। কিন্তু ফ্লোরিডার কি-ওয়েস্টের হোয়াইটহেড স্ট্রিটের বাড়িটি হেমিংওয়ের ব্যক্তিগত জীবন ও সাহিত্য বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিল।
১৯২০ সালের মাঝামাঝি সময়ে সহকর্মী জন ডস পাসোসের পরামর্শে হেমিংওয়ে যখন প্যারিস থেকে কি-ওয়েস্টে পাড়ি জমান তখন তিনি সুপরিচিত লেখক হলেও কিংবদন্তি হয়ে ওঠেননি।
কি-ওয়েস্টের হোয়াইটহেড স্ট্রিটের সাজানো-গোছানো সুন্দর বাড়িটি আর্নেস্ট হেমিংওয়ে তার দ্বিতীয় স্ত্রীর চাচার সূত্রে উপহারপ্রাপ্ত হয়েছিলেন। সেই সময় তার এই বাড়িটি কেনার সামর্থ্য ছিল না। স্প্যানিশ ধাঁচে সাজানো এই বাড়িটিতে হেমিংওয়ে ‘এ ফেয়ারওয়েল টু আর্মস’ উপন্যাসটি লেখেন, যা ১৯২৯ সালে প্রকাশিত হয়। এটি ইংরেজি ভাষায় লেখা অন্যতম সেরা যুদ্ধভিত্তিক উপন্যাসগুলোর একটি। এ ছাড়াও তিনি ওই বাড়িতে ডেড ইন দ্য আফটারনুন, গ্রিন হিলস অব আফ্রিকা এবং ফর হুম দ্য বেল টোলসের মতো জনপ্রিয় উপন্যাস লেখেন।
১৯৫৪ সালে হেমিংওয়ে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পান। ১৯৫৩ সালে ফিকশনের জন্য পান পুলিৎজার পুরস্কার। কি-ওয়েস্টের গভীর সমুদ্রে মাছ ধরার প্রতি হেমিংওয়ের প্রবল মোহ তৈরি হয়েছিল। ওই সময়টাতে তিনি ‘পাপা’ ডাকনামে বিখ্যাত হয়ে ওঠেন। দক্ষিণ ফ্লোরিডার গভীর সমুদ্রের জীবন এবং বন্ধুদের অনুপ্রেরণায় তিনি ‘টু হ্যাভ অর হ্যাভ নট’ উপন্যাসটি লিখতে অনুপ্রাণিত হন।
আর্নেস্ট হেমিংওয়ের স্মৃতিতে ভরে আছে তার পশ্চিম হোয়াইটহেড স্ট্রিটের বাড়িটা। হেমিংওয়ের টাইপরাইটারটা এখনো সেখানে সাজানো আছে সযত্নে। এ ছাড়াও আফ্রিকায় তার বিখ্যাত শিকারকালীন ভ্রমণে সংগৃহীত জীবজন্তুর মাথা এবং চামড়ার সংগ্রহও সেখানে শোভা পাচ্ছে।
পাবলো পিকাসো, হিরি ট্রুম্যান এবং অড্রে হেপবার্নের মতো আর্নেস্ট হেমিংওয়েও বিড়াল পুষতে ভালোবাসতেন। হেমিংওয়ের পোষা বিড়ালগুলোর মধ্যে প্রায় বেশিরভাগের অতিরিক্ত আঙুল ছিল। যাদের ‘পলিড্যাকটাইল ক্যাট’ বলা হতো। একবার এক জাহাজের ক্যাপ্টেন হেমিংওয়েকে একটি ছয় পা-ওয়ালা বিড়াল উপহার দিয়েছিলেন। নোবেলজয়ী লেখক সেই বিড়ালটির প্রতি অত্যন্ত অনুরাগী হয়ে পড়েছিলেন। ধারণা করা হয়, জাহাজের ক্যাপ্টেনের উপহার দেয়া সেই ছয় পা-ওয়ালা বিড়ালটি বংশ বিস্তার করার ফলে আর্নেস্ট হেমিংওয়ের বাড়িতে এতগুলো পলিড্যাকটাইল ক্যাটের দেখা মিলত সে-সময়।

কারিকা ডেস্ক

NO COMMENTS

Leave a Reply