Home মূল কাগজ নগরোদ্যান সচিবালয়ের চারপাশে নীরব এলাকা ঘোষণা

সচিবালয়ের চারপাশে নীরব এলাকা ঘোষণা

হর্ন বাজালেই জেল-জরিমানা

কারিকা প্রতিবেদক

বাংলাদেশ সচিবালয়ের চারপাশ ‘নীরব এলাকা’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এর ফলে রাজধানী ঢাকার জিরো পয়েন্ট, পল্টন মোড় ও সচিবালয় লিংক রোড হয়ে চলাচলকারী যানবাহন চালকরা হর্ন বাজাতে পারবেন না। ১৭ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকালে ‘নীরব এলাকা’ বাস্তবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।
সচিবালয়ের এক নম্বর গেটের সামনে বেলুন উড়িয়ে ‘নীরব এলাকা’ বাস্তবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন। এ সময় মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল্লাহ আল মোহসীন চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
মন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী, উদ্বোধনের পর থেকে নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে আইন অমান্য করে এ এলাকায় হর্ন বাজানো গাড়ির চালকদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।
‘নীরব এলাকা’ বাস্তবায়ন কার্যক্রম সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, ‘এখান (সচিবালয়) থেকে শুরু করা হলো। পর্যায়ক্রমে পুরো ঢাকাসহ সারা দেশে এটা কার্যকর করা হবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘‘শব্দদূষণ (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা, ২০০৬ অনুযায়ী ‘নীরব জোন’ এলাকায় কেউ হর্ন বাজালে প্রথমবার সর্বোচ্চ এক মাসের কারাদন্ড বা সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা বা উভয় দন্ডে দন্ডিত হবেন। একই অপরাধ পরবর্তী সময়ে কেউ করলে সর্বোচ্চ ছয় মাসের কারাদন্ড বা সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত হবেন।’’
বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইনের অধীনে প্রণীত ‘শব্দদূষণ (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা, ২০০৬’ অনুযায়ী ‘নীরব এলাকা’ বলতে হাসপাতাল, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত বা একই জাতীয় অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান এবং এর চারিদিকে ১০০ মিটার পর্যন্ত বিস্তৃত এলাকাকে বোঝায়।
এর আগে, গত ২৫ নভেম্বর পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় ১৭ ডিসেম্বর থেকে বাংলাদেশ সচিবালয়ের চারপাশ অর্থাৎ জিরো পয়েন্ট, পল্টন মোড়, সচিবালয় লিংক রোড হয়ে জিরো পয়েন্ট এলাকাকে নীরব জোন বা হর্নবিহীন এলাকা হিসেবে কার্যকর করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।
হাসপাতাল ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আশপাশে নিরব এলাকার বাস্তবায়ন করা হচ্ছে না কেন জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘পরবর্তীতে আমরা হাসপাতাল এলাকাতেও যাব।’

NO COMMENTS

Leave a Reply