Home মূল কাগজ সুসম্পর্ক বজায় রাখাই ব্যবসার মূলকথা

সুসম্পর্ক বজায় রাখাই ব্যবসার মূলকথা

মো. শেখ সাদী, চেয়ারম্যান, এশিওর গ্রুপ


কৈশোরের দুরন্ত, চঞ্চল আর মেধাবী ছেলে মো. শেখ সাদী। জন্ম ১৯৭৮ সালে, কুষ্টিয়ায়। শৈশব কেটেছে গ্রামেই। তখন থেকেই কিভাবে মানুষের উন্নয়নে কাজ করা যায় সে স্বপ্ন দেখতেন। মেধাবী ছাত্র হওয়ায় ছিলেন সবার স্নেহভাজন। স্কুলজীবনে এলাকার দানবীর হিসেবে খ্যাত আলাউদ্দিন সাহেবকে দেখে মুগ্ধ হতেন। হতেন অনুপ্রাণিত। সৎ উপায়ে ব্যবসা করার দৃঢ় মানসিকতার শুরু তখন থেকেই। খুব অল্প বয়স থেকেই মো. শেখ সাদী দূরদর্শী, নির্ভীক হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠেন। ঢাকা কলেজ থেকে সমাজবিজ্ঞানে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নেন এমবিএ ডিগ্রি। লেখাপড়া শেষে চাকুরি নয়, চেয়েছেন উদ্যোক্তা হতে। আবাসন খাতের নানা অনিয়ম আর অব্যবস্থাপনার প্রতি লক্ষ্য রেখেই ২০০৭ সালের ১৯ জানুয়ারি তিনি শুরু করেন এশিউর গ্রুপের প্রথম প্রতিষ্ঠান এশিউর প্রোপার্টিজ লিমিটেড। এই ব্যবসায় ক্রেতা ও জমির মালিক উভয় পক্ষের চরম ভোগান্তির বিষয়ে সচেতন ছিলেন শেখ সাদী। তাই উভয় পক্ষকে সন্তুষ্ট রেখে ব্যবসা করার দৃঢ় চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেন তিনি। ব্যবসায়িক জীবনে অক্লান্ত পরিশ্রম, নিষ্ঠা, সততা ও দূরদর্শিতাই ছিল তার শক্তি। প্রতিষ্ঠানের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীর অধিকার প্রতিষ্ঠা, সুন্দর কর্মময় পরিবেশ সৃষ্টি, ক্রেতা ও জমির মালিকের সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তিপত্রের শর্ত অনুযায়ী যথাসময়ে সকল কার্য সম্পাদন এসব বিষয়ে ছিলেন শুরু থেকেই সতর্ক দৃষ্টি রেখেছিলেন। তিনি বিশ্বাস করেন, প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সবার সন্তুষ্টি প্রয়োজন। কারণ তাদের সন্তুষ্ট না রাখলে ক্রেতার সন্তুষ্টির ব্যাপারে তারা আন্তরিক হবে না। আর ক্রেতাকে সন্তুষ্ট করতে না পারলে সব চেষ্টাই বৃথা। আর তাই অফিসের কর্মীদের জন্য নিয়মিত কাউন্সিলিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়। নিজেই সবার সঙ্গে সরাসরি কথা বলেন। ফলে মালিক-কর্মচারী ভেদাভেদ ভুলে সবার মধ্যে সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। উন্নত হয় কাজের পরিবেশ। গ্রাহকসেবার ক্ষেত্রেও এশিওর প্রোপার্টিজ লিমিটেডের সব কর্মী অত্যন্ত যত্নবান। বর্তমানে এশিউর গ্র“পের তিনটি ডেভেলপার কোম্পানির অধীনে ১২৫টি আবাসিক ও সাতটি বাণিজ্যিক প্রকল্প বিভিন্ন মেয়াদে সহস্রাধিক গ্রাহককে হস্তান্তরের জন্য চলমান রয়েছে।
ইতিমধ্যে ‘আইএসও ৯০০১ : ২০১৫ কিউএমএস সার্টিফিকেট’ অর্জনের মাধ্যমে এশিওর গ্রুপ সুপরিচিত ব্র্যান্ডে পরিণত হয়েছে। সম্প্রতি মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলায় প্রায় ২০০বিঘা জমিতে গড়ে তোলা হয়েছে হয়েছে ‘এশিওর এগ্রো কমপ্লেক্স’।
ব্যক্তিগত জীবনে স্ত্রী এবং দু’সন্তান নিয়ে সুখী পরিবার মো. শেখ সাদীর। নানা জনউন্নয়নমূলক কাজে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন নিয়মিত।
সাক্ষাৎকার : ফারিয়া মৌ

NO COMMENTS

Leave a Reply